প্রাপ্তবয়স্ক বা বড়দের ব্রণ হওয়ার কারন।

ব্রণ একটি প্রচলিত সমস্যা। অধিকাংশেরই ধারণা, ব্রণ কেবল বয়ঃসন্ধিকালেই বেশি হয়। তবে বয়ঃসন্ধিকালের পরেও ব্রণ হয়। আর সেটা অনেক সময় বেশিই হয়।

ব্রণ একটি প্রচলিত সমস্যা। অধিকাংশেরই ধারণা, ব্রণ কেবল বয়ঃসন্ধিকালেই বেশি হয়। তবে বয়ঃসন্ধিকালের পরেও ব্রণ হয়। আর সেটা অনেক সময় বেশিই হয়।

১ . অতিরিক্ত কসমেটিক ব্যবহার:
অতিরিক্ত কসমেটিক বা মেকআপ ব্যবহার ব্রণ হওয়ার একটি অন্যতম কারণ। তাই কসমেটিক যত কম ব্যবহার করা যায়, ততই ভালো। আরক করলেওভালো কোম্পানির যেন হয়, সেই বিষয়ে খেয়াল রাখুন।

২. অতিরিক্ত মুখ ধোয়া:
অতিরিক্ত মুখ ধোয়াও ব্রণ হওয়ার একটি কারণ। তাই এটি করা থেকে বিরত থাকুন। সাধারণত তৈলাক্ত ত্বকে তিন থেকে চারবারমু খ ধুবেন। আর শুষ্ক ত্বকে অন্তত দুবার করে মুখ ধোবেন।

৩. পরিবেশদূষণ:
ভিটামিন-ই ত্বককে বাইরের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। তবে বায়ুদূষণ, পরিবেশদূষণ ভিটামিনই ই-কেনষ্ট করে। আর এতে ত্বকের ক্ষতি হয়।

৪. ওষুধ:
কিছু ওষুধ রয়েছে, যেগুলো ব্রণ বাড়ায়। তাই যেকোনো ওষুধ খাওয়ার আগে সেটি ব্রণ বাড়ায় কি না, সে বিষয়ে ডাক্তারের কাছে জিজ্ঞেস করে নিন। আর ব্রণ হলে করণীয় কী, সে বিষয়ে পরামর্শ নিয়ে নিতে পারেন।
Previous
Next Post »