তকতকে পরিচ্ছন্ন সৌন্দর্যের অধিকারিণী হয়ে উঠুন মেকআপের গুণে

তকতকে পরিচ্ছন্ন সৌন্দর্যের অধিকারিণী হয়ে উঠুন মেকআপের গুণে

be-gorgeous-and-glowing-with-simple-makeup-tricks

পরিচ্ছন্ন, দাগহীন, নিখুঁত ত্বকের সত্যিই কোনও বিকল্প নেই। আপনি যদি তেমনই ভাগ্যবতী হন, তা হলে আপনার মেকআপের অর্ধেক ওখানেই সারা হয়ে যাবে। কিন্তু সত্যি বলতে ক’জনই বা তেমন উজ্জ্বল, টানটান, দাগছোপহীন ত্বকের মালকিন হন বলুন? আপনি যদি এই দ্বিতীয় দলের হন, তা হলে শুধু আপনার জন্যই রইল মেকআপের এমন কিছু বিশেষ টিপস যাতে সমস্ত খামতি ঢেকে উজ্জ্বল হয়ে উঠতে পারেন যে কোনও দিন, যে কোনও সময়।

মুখ পরিষ্কার করে নিন
যে কোনও মেকআপেরই গোড়ার কথা এটি। ত্বক আগে ভালো করে ক্লেনজ়িং ও টোনিং করে নিন, তারপর পর্যাপ্ত ময়শ্চারাইজ়ার লাগান। ত্বক আর্দ্র থাকলে মেকআপ ভালোমতো বসতে পারবে।

সিলিকা-বেসড ফেস প্রাইমার ব্যবহার করুন
শুরুতেই বেস হিসেবে মুখে প্রাইমার লাগান। সিলিকা-বেসড প্রাইমার ত্বকের সমস্ত দাগ-ছোপ ঢেকে দিতে সাহায্য করে। এর পর ব্যবহার করুন ফাউন্ডেশন স্টিক। আঙুলে ফাউন্ডেশন নিয়ে ড্যাব করে করে লাগান, স্পঞ্জ দিয়ে মিলিয়ে দিন। হেয়ারলাইন, নাক, চোয়াল আর গালের হাড়ের রেখা স্পষ্ট করুন।

হালকা ব্লাশ লাগান
অল্প হাসুন। গালের যেটুকু জায়গা উঁচু হয়ে আছে, সেখানে মিউটেড পিঙ্ক রঙের ক্রিম ব্লাশ লাগান। আঙুলের সাহায্যে রংটা মিলিয়ে
দিলে ত্বকের স্বাভাবিক ভাবটা বজায় থাকে।

নজর দিন ভুরুতে
এই লুকটির জন্য পরিচ্ছন্ন এবং স্ট্রং ব্রো লাইন থাকা দরকার। আইব্রো ব্রাশ দিয়ে ভুুরু আঁচড়ে নিন পরিষ্কার করে, আপনার চুলের স্বাভাবিক রঙের কাছাকাছি কোনও শেডের আইব্রো পেনসিল দিয়ে ভরে দিন ফাঁকা জায়গা।

আইশ্যাডোর প্রলেপ
ত্বকের রঙের সবচেয়ে কাছাকাছি কোনও
ন্যুড শেডের আইশ্যাডো বাছুন। আইশ্যাডো ব্রাশ ব্যবহার করে চোখের পাতায় ভালো
করে আইশ্যাডো লাগান।

মাস্কারা আর লিপস্টিক
প্রচুর, প্রচুর মাসকারা ব্যবহার করুন। চোখটা খুলে যাবে কয়েক পরত লাগানোর পর। ঠোঁটে প্রথমে লিপ প্রাইমার লাগান, তার পর আঙুলের সাহায্যে আপনার পছন্দের কোনও ন্যুড শেডের লিপস্টিক লাগিয়ে নিন। ঠোঁটে গাঢ় রং ব্যবহার করবেন না।

চুলের জন্য
চুলকে বেশ কয়েকটি বড়ো ভাগে ভাগ করুন, কার্লিং আয়রন দিয়ে টং করে নিন। হাতের আঙুল দিয়ে কার্লগুলো খুলে নেবেন, তা হলে
খুব স্বাভাবিক লুক আসবে।

এবার নিজেকে আয়নায় দেখুন আর সত্যি করে বলুন, নিজেই চমকে গেছেন না?
Previous
Next Post »