Crazy Love - পাগল প্রেম

Crazy Love, পাগল প্রেম,
Crazy Love

ছোট্ট একটি গ্রামে একটি ছেলের বসবাস।
খুব ছোটবেলায় তার মা তাকে রেখে না ফেরার দেশে চলে যায়। ছেলেটির বাবা অফিসের কাজে বাসায় তেমন থাকতেন না।

যদিও ছেলেটির বাবা আছে। তারপরেও ছেলেটি খুব অসহায় হয়ে পড়ে। কারণ, ছেলেটিকে দেখেশুনে রাখার মতো কেউ ছিলনা।

বাবা অফিসের কাজে চলে যেত, আর এদিকে ছেলে একা। বাবা যখন অফিসের কাজে বেরিয়ে যেত ছেলে বাইরে কোথাও যেতো না।

তার সঙ্গ ছিল একমাত্র কোলবালিশ।

ছেলেটি সব সময় তার মায়ের জন্য কান্নাকাটি করত, এভাবে তার জীবন বেড়ে উঠতে থাকে।

পর্যায়ক্রমে একসময় দেখা যায় যে, ছেলেটি যেখানেই যায় না কেন? কোলবালিশ টি সব সময় তার সঙ্গে থাকে। কারণ, সারাদিন ঘরে শুয়ে থাকত এবং পাশে থাকতো কোলবালিশ।

ছেলেটি কোলবালিশ জড়িয়ে শুয়ে থাকতো এবং মায়ের কথা মনে করে শুধু কান্নাকাটি করত।

এভাবেই পর্যায়ক্রমে যখন বিয়ের বয়স হলো বাবা তার জন্য মেয়ে দেখতে শুরু করলো।

একদিন একটি মেয়ে দেখার পর পছন্দ হয় এবং কথাবার্তা সেরে আংটি পরিয়ে দেয়।

ঐ দিনও কোলবালিশ টি সাথে ছিল। কিন্তু,
ঐদিন ভুলবশত ছেলেটির হবু শাশুড়ি কোলবালিশ টি সরিয়ে রাখে। সেই জন্য ছেলেটি ওই মেয়েটিকে বিবাহ না করেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়, এবং হাত থেকে আন্টি খুলে নেয়।

এরপর আবার মেয়ে দেখতে শুরু করলো
এবং পছন্দ হলো বিয়ে করল। বাসর রাতেই
সে বালিশ হাতে নিয়ে খাটের উপর গিয়ে শুয়ে পরল। হবু স্ত্রী জিজ্ঞেস করলো আপনার হাতে বালিশ কেন? ছেলেটি বলল এটা জেনে তুমি কি করবে আর বালিশ তুমি কখনো ধরবে না।

এভাবেই দুই-একদিনের মধ্যেই কথা কাটাকাটি হয়। দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য হয় এবং বউ তার বাপের বাড়িতে চলে যায়।

ছেলেটি তখন বুঝতে পারল যে তার স্ত্রীকে ছাড়া সে থাকতে পারবে না এবং তার স্ত্রীর বাড়িতে যায় তাকে বিষয়টা ভেঙ্গে বলে।

কেন সে সব সময় কোলবালিশ সাথে রাখে কারণ কি ছিল। সবকিছু শোনার পর তার স্ত্রী
তাকে কোলবালিশ সাথে রাখার অনুমতি দিল
এবং সবশেষে তাদের সংসার সুখের হলো।
Previous
Next Post »