প্রেমে ব্যর্থ হলেই কি সব শেষ? জীবন থেমে যাবে ~ WriterMosharef

প্রেমে ব্যর্থ হলেই কি সব শেষ? জীবন থেমে যাবে

প্রেমে ব্যর্থ, প্রেমে ব্যর্থতা, ব্যর্থ প্রেমের ছোট গল্প, ব্যর্থ প্রেমের উক্তি, প্রেমে ব্যর্থ হয়ে আত্মহত্যা, প্রেমে ব্যর্থ উক্তি, প্রেমে ব্যর্থতার উক্তি, প্রেমে ব্যর্থ হওয়ার স্ট্যাটাস, প্রেমে ব্যর্থ হলে করনীয়, প্রেমের গল্প, প্রেমের উক্তি, প্রেমের কথা,

Hi I'm WriterMosharef

হুট করেই তন্নয়ের হোয়াটসএ্যাপ নম্বরে একটা আন-নোউন নম্বর থেকে কল আসে। তন্নয় খুব গভীর মনোযোগ দিয়ে তাকিয়ে থাকে নম্বরটার দিকে। নম্বরটা তার পরিচিত সেজন্য নয়। তন্নয় সচরাচর তার হোয়াটসএ্যাপ নম্বর কাউকে দেয় না। খুব হাতে গোনা কয়জনের কাছেই তার এই নম্বরটা আছে তাই এই রাত প্রায় ১ টার সময় তাকে কে কল দিতে পারে সেটা ভেবেই নম্বরটার দিকে তাকিয়ে আছে সে। রাতের এই সময় তন্নয় লেখালেখি করেই কাটায়। আগামী
সপ্তাহেই তার নতুন উপন্যাস প্রকাশিত হবে যার টাইটেল "দ্যা আনটোল্ড ফ্যাকচুনেশন"। এই নিয়ে পাঠক সমাজে অনেক তোলপাড় চলছে। সেই উপন্যাসেরই ফাইনাল প্রুভ দিচ্ছে তন্নয় রাত জেগে।
ফোনটা বাজতে বাজতেই থেমে গেলো। এক সেকেন্ডের ব্যবধানে আবার বাজতে লাগলো। তন্নয় এবার ফোনের উপর থেকে চোখ সরিয়ে ল্যাপটপের স্ক্রিনের দিকে তাকায়। তার কাজ প্রায় শেষের দিকে। উপন্যাসের শেষাংশ চেক করা বাকি তার। এই উপন্যাসের শেষাংশটাই মূল অংশ তাই এখানে এসে তন্নয় কোন
তাড়াহুড়ো করতে চায় না। দ্বিতীয়বারের মতো ফোনটা বাজতে বাজতেই বন্ধ হয়ে গেলো। আবার ঠিক আগের বারের মতোই এক সেকেন্ডের ব্যবধানে ফোনটা আবারও বাজতে লাগলো। এবার তন্নয় ল্যাপটপ থেকে দৃষ্টি, মন দুটোই সরিয়ে ফোনটা হাতে নেয়। এক মুহূর্ত কিছু ভেবেই কলটা সিরিভ করে সে।

হ্যালো! তন্নয় হ্যালো বলার প্রায় সাথে সাথেই লাইনের অন্যপাশ থেকে ভেসে আসে একটা মেয়েলি কন্ঠ।

মেয়ে জিজ্ঞেস করে,
মিস্টার অথোর বলছেন?
মিস্টার অথোর এটা তন্নয়ের পাঠকদের তাকে দেয়া নিক নেইম। এ থেকে বোঝা যায় মেয়েটা নিশ্চয়ই তন্নয়ের একজন পাঠক, ভক্ত বলা যায়। কিন্তু এই মুহূর্তে তন্নয়ের মনের ভিতর দুটো বিষয় ঘুরছে এক এই
নম্বরটা সে কিভাবে পেলো? আর দুই মেয়েটা বাঙালী।
কোনপ্রকার জড়তা ছাড়াই তন্নয় বলে,

-যদি বলি বলছি?
-আমি আপনার একটু সময় চাই। যদিও একটু সময়ে আমার হবে না তবু বেশি নিবো না।
-আচ্ছা, তার আগে আমি জানতে চাই এই নম্বরটা কোথায় পেলেন?
-চাইলে নাকি আকাশের চাঁদও পাওয়া যায় তাহলে একটা হোয়াটসএ্যাপ নম্বর কি খুব কঠিন কিছু যা একান্তই জোগাড় করা যাবে না?
তন্নয় মেয়েটার কথায় দারুণ ইমপ্রেসড হয়। বলে,
-একদম নয়।
মেয়েটা কোন ভনিতা ছাড়াই বলতে শুরু করে,
-আত্মহত্যা মহাপাপ না হলে আমি হয়তো অনেক আগেই আত্মহত্যা করে নিতাম।
-আত্মহত্যা কি কোন সলিউশন?
-উঁহু, সলিউশন নয় তবে এই যে তীব্র যন্ত্রণা হচ্ছে এটা থেকে তো মুক্তি পেতাম। এই যন্ত্রণা বয়ে বেড়ানোর মতো নয়।
-আপনাকে কে দায় দিয়েছে এই যন্ত্রণা বয়ে বেড়াতে?
-ভালোবাসার দায়।
-ভালোবাসা কি আপনাকে বলেছে ব্যর্থ হলেই সে দায় বয়ে বেড়াতে হবে? মেয়েটা একটা তাচ্ছিল্যের হাসি হেসে বলে,
-অথোর সাহেব এই দায় আপনি বুঝবেন না। আপনি কেবল আপনার উপন্যাসের পাতায় প্রেমের কথা লিখতে পারেন। বুকের ভিতরের ঐ চিনচিনে ব্যথাটা আপনি বুঝবেন না, ঐ ব্যথা বুঝা আপনার সাধ্যে
নেই। তন্নয় আরো বেশি তাচ্ছিল্য ভরা হাসি হেসে বলে,
-আমার বুকের ভিতরে ব্যথা নেই তা আপনাকে কে বলল? মেয়েটা চুপসে যায়। তন্নয়কে পাল্টা জবাব দিয়ে বোল্ড আউট। করার মতো জবাব সে খুঁজে পাচ্ছে না। তন্নয়কে কোন জবাব ফিরিয়ে দেয়ার আগেই তন্নয় মেয়েটাকে পাল্টা বোল্ড আউট করে দিয়ে বলে,

প্রেমে ব্যর্থ হলেই কি সব শেষ? জীবন থেমে যাবে।কাউকে ভালোবাসার সাহস রাখেন অথচ তাকে হারিয়ে ভালো থাকার সাহস রাখতে পারেন না কেন? ভালোবাসার মানুষটাকে নিজের চোখের সামনে অন্য কারো নামে দলিল হতে দেখেছেন? দেখেননি।
সেই চিনচিনে ব্যথার আইডিয়া আছে? নিশ্চয়ই নেই। ভালোবাসার মানুষের গর্ভে অন্য কারো সন্তান দেখেছেন? জানি তাও দেখেননি, তা দেখার বা সহ্য করার সাহস আপনাদের নেই। তাও আবার সেই ভালোবাসার মানুষকে হারানো যে মানুষটা আপনাকেই
ভালোবাসে। ভালোবাসাটা একতরফা হলে নিজেকে বুঝ দেয়া যায় কিন্তু সেই ভালোবাসা যদি হয় দু'দিক থেকেই তবুও তা ব্যর্থ তাহলে কিভাবে বুঝাবেন নিজেকে? মরে যাওয়ার হাজারটা কারণ থাকতে
পারে। চেষ্টা করে দেখুন বেঁচে থাকার জন্য একটা কারণই যথেষ্ট।

ভালোবাসায় ব্যর্থ হলেই মরে যেতে হবে কেন? একটা ব্যর্থতা থাকুক না জীবনে অন্য আর দশটা সফলতার স্বাক্ষী হওয়ার জন্য। ভালোবাসা অনেক কঠিন তার চেয়েও বেশি সেই ভালোবাসা হারিয়ে ভালো থাকা। আত্মহত্যার মতো অসৎ কাজ না করে পারলে
ভালো ভাবে বেঁচে থেকে দেখান জীবনে ভালোবাসা পাওয়াই সব নয়। ভালোবাসা কেবল জীবনের একটা উপাদান মাত্র, সম্পূর্ণ জীবন নয়। জীবন ভালোবাসা কেন্দ্রিক নয় বরং ভালোবাসা জীবন কেন্দ্রিক। দেখিয়ে দিন ভালোবাসায় ব্যর্থ হয়েও ভালো থাকা যায় আর সেদিন না হয় আপনাকে অভিনন্দন জানাতে এই আমি
ভালোবাসায় ব্যর্থ হয়েও ভালো থাকা মানুষটা জোড় হাতে করতালি বাজাবো।

আপনি, মেয়েটাকে কথা শেষ করতে না দিয়ে তন্নয় বলে,
-আত্মহত্যাই যদি সলিউশন হতো তাহলে এই মাঝ রাতে আপনি এই মিস্টার অথোর নামের মানুষটার সাথে কথা বলতে পারতেন না। এক তন্নয় পেরেছে, আপনিও না হয় দেখিয়ে দিন বিশ্ববাসীকে আরেক তন্নয় হয়ে। শুভকামনা রইল। আশা করি একদিন খবর পাবো আরো এক তন্নয় পেরেছে ভালোবাসায় ব্যর্থ হয়েও ভালো থাকতে।

ফোনের লাইন কাটার আগে তন্নয় আরো বলে,
-আরেকটা কথা, সবাই পৃথিবীতে ভালোবাসতে আসে না কেউ কেউ ভালোবাসার ফেরিওয়ালা হয়ে আসে ভালোবাসা বিক্রি করতে।

কিছু ভালোবাসা, কিছু ব্যর্থতা থাকলো না হয় নিভৃতে।
তন্নয় লাইনটা কেটে দিয়ে আবার নিজের কাজে মন দেয়। সে জানে এই নম্বর থেকে তার কাছে আর কল আসবে না। মুচকি হেসে তন্নয় মনে মনে বলে, আরো একজন তন্নয়ের জন্ম হলো। ভালো থাকুক তন্নয়রা সুবুদের ছাড়াই।
Previous
Next Post »