অবাক পরিবর্তন ~ WriterMosharef

অবাক পরিবর্তন

অবাক পরিবর্তন, Obak Poriborton, short story, WriterMosharef

Hi I'm WriterMosharef

ফিজিক্স ডিপার্টমেন্টের সুন্দরী মেয়েটা হঠাৎ করে রাতে
আমাকে মেসেজ দিয়ে বলল, এই শোনো তুমি কিন্তু অনেক হ্যান্ডসাম। মনে হয় মুগ্ধ হয়ে তোমায় দেখি। তুমি এত্ত জোশ কেন?

আমি প্রথমে মেসেজটা দেখে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করলাম। এরকম অনেক বার হয়েছে। হয়তো কিছুক্ষণ পরে বলবে যে সরি সরি অমুক ভাইয়া কে পাঠাতে গিয়ে তোমাকে পাঠিয়ে ফেলেছি।

কিন্তু অবাক করা ব্যাপার হলো অনেকক্ষণ অপেক্ষা করার পরেও সে ভুল সংশোধন করল না। তখন আমি কিছুটা লজ্জা পেয়ে বললাম।

তুমি কি আমাকে কিছু বলেছ?

সে বলল, হ্যাঁ হ্যান্ডসাম ও সুদর্শন যে লোকটা তাকেই তো বলব তাই না।

আমি ফ্রিজ থেকে ঠাণ্ডা পানি বের করে খেলাম।

খাওয়ার পর বললাম,

আয়নার সামনে মাঝেমধ্যে নিজেকে ভালই লাগে কিন্তু তাই বলে এভাবে কেউ বলে নাকি দুষ্টু?

আমাকে লজ্জায় ফেলে দিলে গো।

ও একটা হাসির ইমোজি দিয়ে বললো থাক থাক আর লজ্জা পেতে হবে না হিরোর।

ও মাই গড হিরো শব্দটা শোনার পর দেখলাম বুকের মধ্যে ধুক করে উঠলো। আমার খুব খুশি লাগছে।

এভাবে এত সুন্দরী একটা মেয়ের মুখ থেকে প্রশংসা শোনা কিন্তু সহজ কথা নয়।

কিন্তু ব্যাপারটা এই পর্যন্ত থাকলে ভালই ছিল।

কিন্তু ভালো আর থাকলো কই?

একটু পরে হঠাৎ করেই সেই মেয়েটা একটা লজ্জার ইমোজি দিয়ে লিখল, আচ্ছা আমি কি তোমার বাইকের পেছনে বসতে পারি?

আমি হোঁচট খেলাম। কিন্তু তবু সগর্বে বললাম, আচ্ছা ঠিক আছে রোহান ভাইকে বলে একদিন তার বাইকটা নিয়ে আসবনে।

ও অবাক হয়ে বললো এখানে রোহান ভাই কোথা থেকে আসলো?

বাইকটা তোমার না? তোমাকে বাইকে কিন্তু অনেক জোস লাগে।

সেদিন তো দেখলাম তুমি ফুলস্পিডে বাইক চালিয়ে যাচ্ছ।

আমি বললাম, হ্যাঁ মাঝেমধ্যে ভাইয়ের বাইকটা আমি চালাই।

ভাইয়ের মানেই আমার।

জানিনা কী হলো এরপর থেকে মেয়েটা আজ ৯ দিন ধরে টেক্সট করছেনা। মাঝে একবার শুধু রোহান ভাইয়ের আইডিটা চেয়ে নিছিলো।
Previous
Next Post »