যে কারণে মানুষের মন পাথর হয়ে যায় ~ WriterMosharef

যে কারণে মানুষের মন পাথর হয়ে যায়

যে কারণে মানুষের মন পাথর হয়ে যায়, That is why the human mind becomes stone

হঠাৎ করে কেউ শক্ত হতে পারে না, মানুষ শক্ত হয় আঘাতে খুব বেশি আঘাত পেলে মানুষ চুপ হয়ে শক্ত হয়ে যায়। কথায় আছে অল্প শোকে কাতর, অধিক শোকে পাথর।

আজ যে মানুষটাকে আপনি কঠিন মনে করছেন, যার মন আপনার কাছে পাথরের মতো শক্ত মনে হয়, তারও একটা গল্প আছে। পাথর ও কঠিন হয়ে ওঠার গল্প। কারণ কেউ জন্ম থেকেই কঠিন হয় না পাথর হয় না।

যে কোনো কিছুই ভেঙে গেলে হয়তো নতুন একটা কিনে আনা যায়, কিংবা জোড়া লাগিয়েও চালানো যায়। কিন্তু মন ভেঙে গেলে সেটা নতুন কিনে আনাও যায় না আবার জোড়া লাগিয়ে চলাও যায় না। সারাজীবন ভাঙা মন নিয়েই চালিয়ে যেতে হয়।

যে মানুষটার কাছে ভালোবাসা খুঁজতে গিয়েও অবহেলা ছাড়া কিছুই পাওনি, সেও ঠিক একই ভাবে কারো কাছে অবহেলার স্বীকার ইতিউতি করে যার কাছে ভালোবাসা পেতে গিয়ে নিষ্ঠুর রুপ দেখে ফিরে এসেছো, সেও একই ভাবে কারো না কারো কাছে একই রুপ দেখেছে।

পর্যাপ্ত লিমিট পরিমাণে মানুষ কষ্ট সহ্য করার ক্ষমতা রাখে। এই লিমিটের অধিক যখন কেউ আঘাত দিয়ে দেয় কিংবা কষ্ট দিয়ে দেয়, তখন সে মানুষটা বোবা হয়ে যায় চুপ হয়ে যায় দেহের রক্তক্ষরণ মানুষ মুখে বলতে পারে, হৃদয়ের রক্তক্ষরণ মানুষ বলতে পারেনা শুধু নীরবে সহ্য করতে হয়।

শারীরিক আঘাতের দাগ একটা সময় মুঁছে যায়, মানুষ ভুলেও যায়। কিন্তু মুখের কথার আঘাত সবচেয়ে ভয়ংকর কথার আঘাত মানুষ মনে রাখতে না চাইলেও মনে থাকে সারাজীবন কথার আঘাতে মানুষ সবচেয়ে বেশি অদৃশ্য ব্যাথা পায়।

পৃথিবীর কোনো মানুষই অল্প আঘাতেই ভেঙে পড়ে না। পাথর হয়ে যায় না। সহ্য করতে করতে এক সময় পাথর হয়ে যায়। পাথর ভাঙতে ভাঙতে এক সময় গুড়ো হয়ে যায়, কিন্তু মানুষের মন ভাঙতে ভাঙতে এক সময় পাথর হয়ে যায় নিষ্ঠুর হয়ে যায়।
Previous
Next Post »