Koster Kotha - কলিজায় লাগার মতো কিছু কথা ~ WriterMosharef

Koster Kotha - কলিজায় লাগার মতো কিছু কথা

 



আজ আমার জীবনের কিছু  Koster Kotha কথা শেয়ার করবো।


একটা সময় দিন বদলায়।


একটু দেরিতে হলেও পরিস্থিতি চেইঞ্জ হয়।


যে মেয়েটিকে এক সময় পাগলের মতো চাইতেন এখন তার বিয়ের ছবিতে লাভ রিএক্ট দিতে গিয়েও দেখবেন খুব একটা খারাপ লাগছে না।


এলাম, দেখলাম আর চলে গেলাম টাইপের একটা ভাব। আগের মতো বুকে পাথর চেপে বসছে না।


ইউনিভার্সিটিতে ঢুকেই লক্ষ্য স্থির করেছিলেন ভার্সিটির শিক্ষক হবেন?


আচ্ছা বলুন দেখি তৃতীয় বর্ষে এসে দুই দুইটা সাপ্লি খাওয়ার পরেও কি আপনার সেই স্বপ্নটা একটু করে খোঁচা মারে?


নাকি এখন এইসব নিয়ে মাথাই ঘামানো হয় না?

বিসিএসের জন্য তো দিনরাত এক করে দিলেন। 


এখন এই ৩১ বছর বয়সে এসে প্রাইভেট ব্যাংকের টেবিলে বসেও কি নিজেকে ফরেন ক্যাডারের লোক মনে হয়?


এই যে এতো সময় নিয়ে ভারত মহাসাগরের দ্বীপের নাম মুখস্ত করেছিলেন সেগুলো কি এখনো মগজের দরজায় আনাগোনা করে?


সময় বদলায়। 

আজকে না হলেও কাল, কাল না হলেও পরশু! পরশু না হলেও কোন একদিন সময় বদলে যায়।


যে ব্যাপারগুলো নিয়ে অনেক এক্সাইটমেন্ট থাকে সেই ব্যপারগুলো আস্তে আস্তে পানসে হয়ে যায়।


একসাথে বসে বাবুদের নাম ঠিক করা সময়টাও এক সময় ঠিক পালিয়ে যায়। বাবুদের নামটাও আস্তে আস্তে মাথা থেকে মুছে যায়।


প্রতিটি রাতে চোখের পানিতে একাকার হওয়া মুহুর্তগুলো এক সময় আর থাকে না।


চোখের পানিটা শুকিয়ে যায় কাঁদতেও আর ইচ্ছে করে না জীবনের বৃত্তটা খুবই অদ্ভুত। 


যা করতে হবে বলে ভাবেননি এখন সেটাই করতে হচ্ছে।


যা করবেন বলে ভেবে রেখেছিলেন সেখান থেকে এখন অনেক দূরে। আমরা যা ভাবি সব সময় তা হয় না বলেই এটা জীবন।


যাকে ভালোবাসি তাকে পাইনি। 


যাকে পেয়েছি তাকে ভালোবাসি না। কিন্তু এরপরেও তার সাথে বসে সেলফি দিই। এরপরেও তাকে নিয়ে স্বপ্নের কথা অন্যদের বলে বেড়াই।


এরপরেও ভালো আছি বলে ভালো থাকার অভিনয়টা করে যেতে হয়।


জীবনেও যে চিন্তা করেনি বাইরের স্কলারশিপ পাবে সে কিন্তু ঠিকই বাইরে চলে গেলো পড়াশুনা করতে। আর যার যাওয়ার কথা ছিল আগে তারই কোন খবর নেই।


স্কুলের সেই লাস্ট বেঞ্চার যাকে কেউ কোনদিন হিসেবের মধ্যে রাখেনি কি করে যেন সেই ছেলেটাই আজকে সবাইকে আশারবানী শোনায়।


তার সেমিনার দেখতে লাইন ধরে টিকেট কাটে লোকজন।


জীবন কখন কাকে ১৮০ ডিগ্রি এঙ্গেলে ছুড়ে মারবে আর কখন কাকে সাদরে গ্রহন করবে সেটা বোঝা মুশকিল। গণিতের হিসেব থেকেও এই হিসেব আরো জটিল। আইন্সটাইনের সূত্র দিয়েও এই অঙ্ক মেলানো এতো সহজ না।


জীবন কাউকে কুকুরের মতো দৌড় করায়। আবার কাউকে রাজার হালে রাখে।


জীবনে ১০ হাজার টাকা একসাথে না দেখা লোক এক সময় কোটি টাকার মালিক হয়। আর কোটি টাকার বিছানায় ঘুমানো রাজা এক সময় রাস্তার পাশেও ঘুমানোর জায়গা পায় না।


যে কিনা ধ্বংস হয়ে যাবে বলেই ধরে নেয়া হয়েছিল আজকে সে বটবৃক্ষের মতোই বিশাল। যে সবুজ চারার মতো অঙ্কুরিত হয়েছিল আজকে সে ঝড়ে উপড়ানো গাছের মতোই পড়ে আছে।


উপরওয়ালার এই খেলা বোঝার সাধ্য পৃথিবীতে কারো নেই।

Previous
Next Post »